ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী করলেন মামলা, স্বামী পাঠালেন তালাকনামা

cyber-crime-bd
আইনজীবী আল মামুন রাসেল এর ফেইসবুক আইডি থেকে

স্বামী চিকিৎসক, ব্যস্ত মানুষ। এই ফাঁকে স্ত্রী ব্যস্ত থাকেন ফেসবুকে। সন্দেহ হওয়ায় স্বামী গোপনে স্ত্রীর আইডিতে লগইন করেন। দেখতে পান স্ত্রী পরপুরুষের সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত। এই নিয়ে তাদের মধ্যে রাগারাগি হয়।

গোপন কর্মকাণ্ড দেখে ফেলায় ভীষণ রেগে যান স্ত্রী। বাপের বাড়ি ও পরকীয়া পুরুষের কাছে স্বামীর নামে নালিশ দেন। তারা বুদ্ধি দেন সাইবার অপরাধ ট্রাইবুনালে মামলা করতে। স্ত্রী সেটাই করেন। কোর্ট থেকে স্বামীর নামে ওয়ারেন্ট জারি করা হয়। অবশেষে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন ভুক্তভোগী স্বামী।

এভাবে হয়রানির শিকার হওয়ায় স্বামী ডিভোর্স লেটার পাঠিয়ে দেন। এতে স্ত্রীর টনক নড়ে। ভুল বুঝতে পেরে হাতে পায়ে ধরে কান্নাকাটি শুরু করে। কিন্তু তাতে স্বামীর মন গলেনি। মেয়েটির পরিবারের কেউ এখন আর দায়িত্ব নিতে চাচ্ছে না।

সাইবার অপরাধ ট্রাইবুনালে স্বামী-স্ত্রী সংক্রান্ত আরো অভিযোগ আসে। যেমন স্বামী যৌতুকের জন্য চাপ দেয়। যৌতুক না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীর সাথে অন্তরঙ্গ মুহুর্তের ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে দিয়েছে। বাধ্য হয়ে স্ত্রী সাইবার ট্রাইবুনালের শরণাপন্ন হয়েছেন।

সাবেক স্বামী ডিভোর্সের পর স্ত্রীর ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বিবাহিত জীবনের ঘনিষ্ঠ ও আপত্তিকর ছবি পোস্ট দিয়েছে এমন ঘটনা রয়েছে।

এছাড়া ফেসবুকে অনেক নারী নিজেদের ছবি প্রকাশ করেন। সেইসব ছবি কম্পিউটারে কারসাজি করে নগ্ন দৃশ্যের সাথে যুক্ত করে অনেকে প্রতারণা করেন। আর ব্যক্তিগত পরিচয় ও ঘনিষ্ঠতার সুযোগ নিয়ে ফাঁস করার ভয় দেখিয়ে টাকা পয়সা হাতিয়ে নেয়ার মতো ঘটনা তো আছেই।

এজন্য হালকা বা ঘনিষ্ঠ যেকোনো প্রকার অবৈধ সম্পর্ক করতে নেই। অপরাধ অবশ্যই পুরুষ করছে কিন্তু নারী প্রলুব্ধ হয়ে একইসাথে ঘটনার জন্য দায়ী বটে। আবার উল্টো ঘটনাও ঘটে। নারীরাও এখন প্রতারণার সাথে যুক্ত হচ্ছে। ফেসবুক প্রেম থেকে সাবধান থাকা দরকার।

ফেসবুকে ব্যক্তিগত ছবি ও তথ্য প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকা দরকার। কারণ দুষ্টু লোকেরা ফেসবুক থেকে ছবি ও তথ্য নিয়ে নারীদের ব্ল্যাকমেইল করার প্রয়াশ পায়। তাদেরকে এমন কিছু করার সুযোগ দেয়া উচিত নয়।

আর ছবি ও ভিডিও ধারণের ক্ষেত্রেও সাবধান থাকতে হবে। কারণ একবার ছবি বা ভিডিও ধারণ হয়েগেলে সেটা সিক্রেট রাখা যায় না। কোনো না কোনো একদিন তা যেভাবেই হোক প্রকাশ পেয়ে যায়।

আরো ফিচার পড়তে ভিজিট করুন featurebd.net